চলে গেলেন বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের নায়ক ব্যারিস্টার মইনুল

  • আপডেট সময় শনিবার, ডিসেম্বর ৯, ২০২৩
  • 95 পাঠক

দিশারী ডেস্ক। ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ। 

সাহস করে সত্য বলার মানুষ, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার সন্ধ্যে সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানীর এভায়কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

তার জুনিয়র ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ব্যারিস্টার মইনুল কয়েকদিন ধরে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শনিবার সন্ধ্যে সাড়ে ৬টার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দীর্ঘদিন ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন কয়েকদিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

২০০৭ সালে ড. ফখরুদ্দীন আহমদের নেতৃত্বে গঠিত তত্ত্ববধায়ক সরকারের উপদেষ্টা হিসেবে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন তথ্য, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত এবং ভূমি মন্ত্রণালয় এর দায়িত্ব পালন করেন। এ সময় তিনি নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগকে স্বাধীন বিচার বিভাগ হিসেবে পৃথকীকরণের উদ্যোগ নেন।

১৯৭৩ সালে নৌকা মার্কার টিকেট নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর বাকশাল গঠেনের বিরুদ্ধে সর্বপ্রথম তিনি প্রতিবাদ জানিান এবং সংসদ সদস্য পদে ইস্তাফা দেন।

ব্যারিস্টার মইনুল প্রখ্যাত সাংবাদিক ও ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার বড় পুত্র। তিনি ১৯৪০ সালের জানুয়ারিতে পিরোজপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।

মইনুল হোসেন ১৯৬১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতক সম্পন্ন করেন। পরে লন্ডনের মিডল টেম্পল থেকে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি ১৯৬৫ সালে তিনি ব্যারিস্টার-ইন-ল ডিগ্রি অর্জন করেন।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!